1. admin@prothomaloonlinenews.com : admin :
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১২:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বর্তমান সময়ের সুন্দরী ও গুনী নাটক অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ ‘আমরা দুঃখিত, লজ্জিত, বিব্রত, নাটক ‘ঘটনা সত্য’ বিবৃতিতে আফরান নিশো ও মেহজাবিন চৌধুরী পর্ণকাণ্ডে জেল হেফাজতে গেলেন শিল্পার স্বামী রাজ কুন্দ্রা ভিকারুননিসার অধ্যক্ষের ফোনালাপ নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠনঃ শিক্ষা মন্ত্রণালয় ভিকারুননিসার অধ্যক্ষকে শিক্ষক নামের কলঙ্ক বললেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম রাজশাহীতে আজ ২৪ ঘণ্টায় ১৮ জনের মৃত্যু বিএনপি`র আমলেই শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস-নৈরাজ্য ছিল: তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বঙ্গোপসাগর থেকে ১১ জেলে জীবিত উদ্ধার ইমন-আইরিন নতুন সিনেমায় করোনার উৎস সম্পর্কিত তথ্য-প্রমাণ নষ্ট করেছে বেইজিং: মার্কিন সিনেটর
ব্রেকিং নিউজ :
বর্তমান সময়ের সুন্দরী ও গুনী নাটক অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ ‘আমরা দুঃখিত, লজ্জিত, বিব্রত, নাটক ‘ঘটনা সত্য’ বিবৃতিতে আফরান নিশো ও মেহজাবিন চৌধুরী পর্ণকাণ্ডে জেল হেফাজতে গেলেন শিল্পার স্বামী রাজ কুন্দ্রা ভিকারুননিসার অধ্যক্ষের ফোনালাপ নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠনঃ শিক্ষা মন্ত্রণালয় ভিকারুননিসার অধ্যক্ষকে শিক্ষক নামের কলঙ্ক বললেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম রাজশাহীতে আজ ২৪ ঘণ্টায় ১৮ জনের মৃত্যু বিএনপি`র আমলেই শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস-নৈরাজ্য ছিল: তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বঙ্গোপসাগর থেকে ১১ জেলে জীবিত উদ্ধার ইমন-আইরিন নতুন সিনেমায় করোনার উৎস সম্পর্কিত তথ্য-প্রমাণ নষ্ট করেছে বেইজিং: মার্কিন সিনেটর

ঝড় আসছে, সতর্ক হোন – মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা

  • প্রকাশকাল: মঙ্গলবার, ২৫ মে, ২০২১
  • ৮৪ দেখা হয়েছে

সাগর ও পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে সবশেষ ওডিশা-পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বুধবারের দিকে বাংলাদেশের খুলনা উপকূলে পৌঁছতে পারে বলে ধারণা করছেন আবহাওয়াবিদরা। এই ঘূর্ণিঝড়ের নাম দেয়া হয়েছে ‘ইয়াস’। মূলত ভারতীয় উপকূলে আঘাত হানলেও বাংলাদেশে এর প্রভাব থাকবে বলে জানিয়ে আসছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

ভারতের উত্তর আন্দামান সাগর ও পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার পথে থাকা লঘুচাপ নিয়ে সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে উপকূলে আঘাত হানলে তা মোকাবিলায় সব প্রস্তুতি নেয়া আছে বলেও আশ্বস্ত করেছেন সরকারপ্রধান।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে নির্মিত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের ১৭৫টি স্থাপনা উদ্বোধন ও ৫০টির ভিত্তি স্থাপন অনুষ্ঠানে রোববার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী।

উদ্বোধন হওয়া স্থাপনাগুলোর মধ্যে রয়েছে ১১০টি বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, ৩০টি বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র, ৩০টি জেলা ত্রাণ গুদাম-কাম-দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা তথ্যকেন্দ্র ও ৫টি মুজিব কিল্লা। আর ভিত্তি স্থাপন হয় আরও ৫০টি মুজিব কিল্লার।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘একটু সতর্ক করছি। আরেকটা ঘূর্ণিঝড় কিন্তু আসছে। আর সেটা কেবল তৈরি হচ্ছে, কতদূর যাবে! এখন আধুনিক প্রযুক্তির কারণে আমরা অনেক আগে থেকে জানতে পারি। সে বিষয়ে আমরা যথেষ্ট সতর্কতা ইতিমধ্যে নিতে শুরু করেছি। ইনশা আল্লাহ আমরা সতর্ক থাকব, এই দুর্যোগ পার করতে পারব।’

আন্দামান সাগর ও পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে সবশেষ ওডিশা-পশ্চিমবঙ্গ হয়ে আগামী বুধবারের দিকে বাংলাদেশের খুলনা উপকূলে পৌঁছতে পারে বলে ধারণা করছেন আবহাওয়াবিদরা। এই ঘূর্ণিঝড়ের নাম দেয়া হয়েছে ‘ইয়াস’। মূলত ভারতীয় উপকূলে আঘাত হানলেও বাংলাদেশে এর প্রভাব থাকবে বলে জানিয়ে আসছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শনিবার আবহাওয়া অধিদপ্তর যে পূর্বাভাস দিয়েছিল তাতে বলা হয়, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ অবস্থান করছে উত্তর বঙ্গোপসাগরে। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে উত্তর আন্দামান সাগর ও তৎসংলগ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে।

ইয়াস সুপার সাইক্লোনে রূপ নিতে পারে বলে এরই মধ্যে সতর্ক করেছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান। তবে ঘূর্ণিঝড়টি নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার মতো এখনও কিছু হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

শনিবার সকালে সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ে এক অনুষ্ঠানে ইয়াস প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী বলেন, যেহেতু এটি এখন পর্যন্ত লঘুচাপ হয়ে আছে, এখনই আতঙ্ক কিংবা শঙ্কার কিছু নেই। অন্যান্য বারের মতো এটা সুপার সাইক্লোন হয়ে আঘাত হানতে পারে।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আরেকটা বিষয় হলো, ঘূর্ণিঝড় এগোনোর সময় প্রতিমুহূর্তে দিক পরিবর্তন করে। দিক পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে নতুন নতুন এলাকা আক্রান্ত হওয়ার শঙ্কা বাড়ে। সে জন্য আমরা আমাদের পুরো উপকূলকে সতর্ক করব, প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা নেব।’

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের ফলে ক্ষয়ক্ষতি রুখতে এরই মধ্যে সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, খুলনাসহ উপকূলীয় এলাকার ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্রগুলো প্রস্তুত করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৯৭৩ সালের এ দিনে বিশ্ব শান্তি পরিষদ জাতির পিতাকে জুলিও কুরি পদকে ভূষিত করেছিল। গণতন্ত্র, স্বাধীনতা ও শান্তি স্থাপনের জন্যই এ পদক দেয়া হয়। জাতির পিতা যে আদর্শ নিয়ে এ দেশ স্বাধীন করেছিলেন, আজ সেই দিনে মানুষের কল্যাণে কিছু কাজ করতে পেরে আমরা সত্যিই আনন্দিত।’

বাঙালি জাতির মুক্তির কান্ডারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালের ২৩ মে বিশ্ব শান্তি পরিষদ জুলিও কুরি পদকে ভূষিত হন। এটিই ছিল স্বাধীন বাংলাদেশের কোনো রাজনীতিবিদের পাওয়া প্রথম আন্তর্জাতিক সম্মান ও স্বীকৃতি।

বঙ্গবন্ধুর জুলিও কুরি পদক লাভের কারণে সেই সময় সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের জাতিসংঘসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর স্বীকৃতি পাওয়া সহজ হয়। রোববার সেই স্বীকৃতির ৪৮তম বার্ষিকী পালন করছে বাংলাদেশ।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

প্রথম আলো অনলাইন নিউজ © All rights reserved

প্রযুক্তি সহায়তায় BTMAXHOST