1. admin@prothomaloonlinenews.com : admin :
শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম

লিটনদের ব্যর্থতার দিনে উজ্জ্বল আশরাফুল

  • প্রকাশকাল রবিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২১
  • ২৯ বার পড়েছে

ব্যাটিংয়ে ধারাবাহিকভাবেই ব্যর্থ লিটনকে নিয়ে কথা হচ্ছিল সহকর্মীর সঙ্গে। এক পর্যায়ে আশরাফুলের সঙ্গে জাতীয় দলের এই ওপেনারের তুলনা দিতেই তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন তিনি। কেননা, লিটনের জোড়া ক্যাচ মিসে খেসারৎ হিসেবে টাইগারদের পরজয়ের দিনে বল হাতে হ্যাটট্রিকসহ পাঁচ উইকেট নিয়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল।

রোববার (২৪ অক্টোবর) আরব-আমিরাতের শারজাতে ১৭১ রান তুলেও পাঁচ উইকেটের হার দিয়েই চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে নিজেদের প্রথম ম্যাচ শুরু করেছে বাংলাদেশ দল। 

আর এদিকে চট্টগ্রামে চলা জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) ২৩তম আসরের দ্বিতীয় রাউন্ডে দ্বিতীয় স্তরে চট্টগ্রাম বিভাগের বিপক্ষে হ্যাটট্রিকসহ পাঁচ উইকেট শিকার করে দলকে লিড পাইয়ে দিয়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল।

শারজায় হওয়া বিশ্বকাপের ম্যাচ আর চট্টগ্রামের এনসিএল ম্যাচ- এই দুইয়ের তুলনাটা এক না হলেও একবুক স্বপ্নভঙ্গের দিনে আশরাফুলের এই কীর্তি দিয়ে কিছুটা হলেও সান্ত্বনা খুঁজে পাওয়া- আরকি। রিয়াদ বাহিনীর হারের মাঝে সান্ত্বনা খুঁজে পাওয়ার খোরাক অবশ্য আরও একটা মিলেছে। আর সেটা হলো- এদিন দুই উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদিকে (৩৯) ছাড়িয়ে বিশ্বকাপে বিশ্বরেকর্ড গড়া সাকিব আল হাসান। 

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৪১টি উইকেট শিকার করে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এখন সবার উপরে।

অন্যদিকে, চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে অবশ্য তেমন সুবিধাই করতে পারেননি মোহাম্মদ আশরাফুল। ৮ বলে মাত্র ৪ রান করে ফেরেন সাবেক এই টাইগার অধিনায়ক। সেইসঙ্গে অন্যদের ব্যর্থতায় ৫৮.৩ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৪৬ রান সংগ্রহ করে বরিশাল।

দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ৬০ রান আসে রাফসান আল মাহমুদের ব্যাট থেকে। আর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন মঈন খান। চট্টগ্রামের পক্ষে হাসান মুরাদ পাঁচটি এবং নাঈম হাসান চারটি উইকেট শিকার করেন। মেহেদী হাসান রানা পান একটি উইকেট।

স্বল্প রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ২১ রান তুলতে পারলেও আশরাফুলের লেগ স্পিনে বিধ্বস্ত হয় চট্টগ্রামে। অষ্টম ওভারের চতুর্থ বলে সাদিকুর রহমানকে শিকার করে উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন আশরাফুল। পরের দুই বলে যথাক্রমে মাহমুদুল হাসান জয় ও ইয়াসির আলি চৌধুরিকে শিকার করে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন আশরাফুল। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এটি তার দ্বিতীয় হ্যাটট্রিক।

আশরাফুলের হ্যাটট্রিকের পরে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি চট্টগ্রাম। আশরাফুল ও মনির হোসেনের পাঁচ উইকেট ভাগাভাগির দিনে চট্টগ্রাম অলআউট হয় ৮৭ রানে। সর্বোচ্চ ২০ রান করেন মোহাম্মদ ইরফান। আশরাফুল ৫৩ রানের বিনিময়ে পাঁচটি ও মনির ১৫ রানের বিনিময়ে পাঁচটি উইকেট পান। যাতে ৫৯ রানে এগিয়ে বরিশাল।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ধরনের আরও খবর

Site Customized By NewsTech.Com

প্রযুক্তি সহায়তায় BTMAXHOST